শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১
শিরোনাম
মাদক বিক্রেতা ও সেবনকারীদের পোস্টার এলাকাজুড়ে টানানো হবে: ওসি মশিউর রুপগঞ্জের কায়েতপাড়ায় বালু ভরাটের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ফতুল্লায় চাঁদ নীট কম্পোজিট ইউনিট টু’র গ্যাস বিলের দুই কোটি টাকা কার পকেটে ? মুক্তিযোদ্ধারা দেশের সূর্য সন্তান-তানভীর আহমেদ টিটু বেনাপোল বন্দরে ভূয়া কার্ডধারী ও ছবি স্টুডিও’র সুমনকে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা নবগঠিত ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগ এর পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত সোনারগাঁয়ের বস্তলে অবৈধভাবে ভ্রাম্যমান সিএনজি স্টেশন বসিয়ে রমরমা ব্যবসা ফতুল্লায় মাদক বিক্রেতার বাড়িতে অভিযানে হেরোইন উদ্ধার গোগনগর ইউপিতে সঞ্চয়কৃত অর্থ ফেরত প্রদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত নারায়ণগঞ্জ জেলা রিপোর্টার্স ইউনিটির নির্বাচনী তফসিল ঘোষনা

বাসায় ফিরলেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী

ডেস্ক
  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২০

রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতাল থেকে তিনি ছাড়া পান। হার্টে রিং পরানোর পর এখন সুস্থ আছেন রুহুল কবির রিজভী। তবে তাকে বাসায় কমপক্ষে এক সপ্তাহ সম্পূর্ণ বিশ্রামে থাকতে হবে। এরপর তিনি ধীরে ধীরে স্বাভাবিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করতে পারবেন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। রিজভীর সহকারী আরিফুর রহমান তুষার বলেন, তিনি আজ বেলা এগারোটায় হাসপাতাল ছেড়েছেন। সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন তিনি। বিশেষ করে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের প্রতি তিনি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

এছাড়া অসুস্থ হওয়ার পর থেকে দলীয় নেতাকর্মী ছাড়াও যারা দেশ-বিদেশ থেকে খোঁজ-খবর নিয়েছেন, সুস্থতার জন্য দোয়া করেছেন তাদেরকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন রিজভী। সেই সঙ্গে ল্যাবএইড হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স ও অন্যান্য কর্মকর্তাকেও তিনি ধন্যবাদ জানিয়েছেন। গত শনিবার (২১ নভেম্বর) সকালে ল্যাবএইড হাসপাতালে রুহুল কবির রিজভীর হার্টে রিং পরানো হয়। তার চিকিৎসক ও বিশিষ্ট ইন্টারভেনশনাল কার্ডিওলোজিস্ট মনোয়ারুল কাদির বিটু এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, গত ১৭ নভেম্বর বেলা সাড়ে এগারোটায় হাসপাতালে ভর্তি হন রুহুল কবির রিজভী। ল্যাবএইডের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. সোহরাবুজ্জামানের নেতৃত্বে মেডিকেল বোর্ড রিজভীর শারীরিক সমস্যা নিয়ে মতামত গ্রহণ করেন। বোর্ডের সদস্যদের মতামতের ভিত্তিতে শনিবার রিজভীর হার্টে রিং পরানো হয়। তিনি বর্তমানে সুস্থ আছেন। ঝুঁকিমুক্ত হওয়ায় তাকে রিলিজ দেয়া হয়েছে।

এর আগে গত ১৫ অক্টোবর ল্যাবএইডে রিজভীর হার্টের এনজিওগ্রাম করার পর হার্টে একটি ব্লক ধরা পড়লে ইনজেকশনের মাধ্যমে সেটির ৪০ থেকে ৪৫ শতাংশ অপসারণ করা হয়। এরপর ২৭ অক্টোবর ল্যাবএইডের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. সোহরাবুজ্জামানের নেতৃত্বে সাত সদস্যের মেডিকেল বোর্ড তার সর্বশেষ শারীরিক অবস্থা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে। এ সময় তার ইকো কার্ডিওগ্রামসহ বিভিন্ন পরীক্ষা করা হয়। শারীরিক অবস্থার উন্নতি হওয়ায় পরদিন ২৮ অক্টোবর রিজভীকে ল্যাবএইড হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়।




শেয়ার

আরও পড়ুন




© All rights reserved © 2020 UjjibitoBD
%d bloggers like this: